আবারও ঘূর্ণিঝড়ের আঘাত সইবে বলে বুক পেতে অপেক্ষা করছে সুন্দরবন

0
556

নাটোর কণ্ঠ ডেস্ক;

আবারো তৈরি হয়ে অপেক্ষা করছেন সুন্দরবন, নিজের বুক পেতে তার এই অপেক্ষা, শুধু আমাদেরকে রক্ষা করবার জন্য। ঘূর্ণিঝড় আনফান এর আঘাত সহ্য করবেন বলে তার এই মাতৃসম অপেক্ষা। ঘূর্ণিঝড় সিডর, আইলা ও বুলবুলের আঘাতে ছিন্নভিন্ন বুকের ক্ষত এখনও কাটেনি। তার ওপর আবারো ধেয়ে আসছে প্রলয়ংকরী ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’। আবারো মায়ের আঁচলের মতো বুক পেতে উপকূলীয় এলাকার মানুষ ও সম্পদ রক্ষায় ঢাল হয়ে দাঁড়াতে প্রস্তুত বিশ্বের সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ বন সুন্দরবন। অথচ আমরা মানুষেরা প্রতিনিয়ত তার উপর করে চলেছি অমানুষিক নির্যাতন।

ইতিহাস বলে বাংলাদেশমুখী প্রায় প্রতিটি ঘূর্ণিঝড় প্রথম আঘাত হানে সুন্দরবনে। বাংলাদেশের ‘ফুসফুস’ খ্যাত এই ম্যানগ্রোভ বন প্রতিবারই বুক চিতিয়ে লড়াই করে রক্ষা করে বাংলাদেশকে। কমে যায় প্রাণহানি এবং সম্পদহানির পরিমাণ।

পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বর ঘূর্ণিঝড় সিডর এবং ২০০৯ সালের ২৫ মে ঘূর্ণিঝড় আইলা একইভাবে সুন্দরবনে বাধা পেয়ে দুর্বল হয়ে পড়েছিল। সর্বশেষ ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ও ফনি সুন্দরবনে বাধা পায়।

গবেষক ও পরিবেশবিদরা বলছেন, সুন্দরবন এমন একটি প্রাকৃতিক সম্পদ যেটা কোনো কারণে ধ্বংস হলে সেটি আর আমরা তৈরি করতে পারব না। এই বন বাংলাদেশকে মায়ের মতো আগলে রাখে। বিভিন্ন প্রাকৃতিক দৈব-দুর্বিপাক থেকে আমাদের রক্ষা করে। এবারও বাংলাদেশকে বাঁচাতে প্রস্তুত সুন্দরবন। তাই আসুন আমরা সকলে মিলে সচেতন হই। সুন্দরবনের ক্ষতির হাত থেকে আমরা রক্ষা করি।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধজেলা প্রশাসনের কর্মচারীদের ঈদ উপহার দিলেন জেলা প্রশাসক
পরবর্তী নিবন্ধনাটোরে “ঘূর্ণিঝড় আম্পানকালীন দূর্যোগ ও দূর্যোগকালীন ও পরবর্তী প্রস্তুতি বিষয়ে জরুরী সভা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে