কামরুল ইসলামের দুইটি কবিতা

0
841
kaka
আরাধ্যার প্রতীক্ষায়
মোঃ কামরুল ইসলাম
আধ-ফালি চাঁদ দেখতে দেখতে ক্লান্ত আমি,
ভাগ্য বিধাতা আসবে কখন- বলে দাও তুমি!
শেষ বার পড়েছিলাম পাঁচ-দুইয়ের চক্ররে,
স্বপ্ন দেখি আজো তাই খুব বেশি ঘুম ভোরে!!
আঁধারে মিলিয়ে সাঁঝে ফিরে আসে রোজ  শুকতারা,
কিছু হয় না ধরায়-জেনে নাও প্রভু তোমার ইচ্ছা ছাড়া।
কি যে ভাল আছে প্রভু দিবে তুমি আমার ভালে,
প্রতীক্ষার প্রহর গুণি হাসবে আরাধ্যা তোমার কোলে।
প্রতিক্ষণে শুকিয়ে হারায় কিশলয় শোভিত মকুল,
আমাদেরও  হারালো না হয় স্বপ্নের স্বাধীন-বকুল।
কপলে  শুকিয়েছে হাজারো মুক্ত কণা আনমনে,
সুখে দুঃখে তবু আছি পাশাপাশি তুমি-আমি দুই-জনে।
নতুনে উত্তাপ
মোঃ কামরুল ইসলাম
তুমি হারিয়ে যাবার সময় আমায় সঙ্গে নিও,
পড়ে যাবার বাহানাতে তোমার দু’হাত বাড়িও।
বিদায় বেলায় চৌকাঠে দাঁড়িয়ে মুচকি হাসিও,
বিরহী-প্রহরগুলো তোমারই সুখস্বপ্নের আবিরে রাঙ্গিও।
অব্যক্ত স্বপ্নের সিঁড়িতে জীবন সাজিও,
চলতি পথে আনমনে হঠাৎ আমায় জড়িও।
একাকীত্বের মুহূর্তৈ সুখময় স্মৃতিগুলো ভাবিও,
তোমার ভালবাসায় আমায় ভরিয়ে দিও।
আমি না হয় রয়ে যাব নিরবে একান্তে তোমার হয়ে,
কোন এক পরন্ত বিকেলে অব্যক্ত সপ্ন রুপে।
দ্বিধাহীন চিত্তে প্রতীক্ষাতে রব   দু’বাহু বাড়িয়ে,
হোক না হ্রদয় তোমার-বিভোর নতুনের উত্তাপে।
Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধ“ও ঘাসের পাতা, ও মৃত্তিকাদল” -বিপুল অধিকারী’র কবিতা
পরবর্তী নিবন্ধ“নামটা জানা গেল না”-রত্না চক্রবর্তী’র অনুগল্প

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে