চাঁচকৈড় ডা: বিধান চন্দ্র দাম গরিব অসহায়দের সহায়

0
720
Bidhan
সন্দীপ কুমার,গুরুদাসপুর,নাটোরকন্ঠ:
গরিব এবং অসহায় মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল ডাক্তার বিধান চন্দ্র দাম। দীর্ঘ প্রায় ৪০ বছর যাবৎ বিনা পারিশ্রমিকে সেবা দিয়ে আসছেন তিনি। সকাল থেকে শুরু হয় চলে একটানা রাত্রি পর্যন্ত। এখানেই শেষ নয় রাতদিন মানুষের সেবায় ব্রত থাকার পরও বিভিন্ন বাসা বাড়ি থেকে ফোন আসা মাত্রই ছুটে যান নিজের ঘুম আর বিশ্রামকে জলাঞ্জলি দিয়ে। এছাড়া বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা করে তিনি অসহায় ও দুস্থ রোগীদের আস্থা অর্জন করেছেন।
ডা. বিধান একজন জেনারেল প্রাকটিশনার ডি.এল.টি(প্যাথ) হলেও দীর্ঘ অভিজ্ঞতা আর হাত জশ আর ভাল ব্যবহারের কারনেই ধনি-দরিদ্র সকল মানুষের কাছেই সমান জনপ্রিয়। গুরুদাসপুর উপজেলার চাঁচকৈড় বাজারাস্থ পুরাতন বাসট্যান্ড তার নিজ বাস ভবনে রোগী দেখেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা মানুষকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা দিয়ে আসছেন। সারাবছরই তিনি চিকিৎসাসেবা দেওয়ার পাশাপাশি গরিব অসহায় রোগীদের মাঝে কখনো বিনা টাকায় উষধও দিয়ে থাকেন তিনি।
বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা কয়েক জন রোগীর সাথে কথা হয় তারা জানান, শুধু গুরুদাসপুরই ও চাঁচকৈড় নয় আশপাশের কয়েকটি গ্রাম থেকে প্রতিদিন শতাধিক রোগী আসেন ওই গরিবের ডাক্তার খ্যাত মানুষ বিধান চন্দ্র দামের কাছে। তাদের দাবি তার কাছে গেলে যত সহকারে দেখেন এবং অনেক সময় টাকা নেন না।
তারা আরো জানান, জেনারেল প্র্যাকটিশনার হলেও দীর্ঘ দিনের অভিজ্ঞতা এবং হাত জসের কারনে প্রায় সকল রোগীই ভাল হয়ে যায় বিধায় আমরা এখানে প্রতিনিয়তই আসি।
এ ব্যাপারে ডা.বিধান চন্দ্র দাম জানান, পেশাগত দায়িত্বের পাশাপাশি সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে তিনি সাধারন মানুষের সেবায় ব্রত থাকেন। সারাবছর বিভিন্ন ওষুধ কোম্পানি থেকে ভিজিট হিসেবে যেসব ফ্রি ওষুধ স্যাম্পল পান, তা তিনি জমিয়ে গরিব ও অসহায় রোগীদের সেবা দিয়ে থাকেন। আর যে রোগী গুলো জটিল মনে হয় সাথে সাথেই স্থানীয় উপজেলা হাসপাতাল অথবা রাজশাহীতে পাঠানোর সুপারিশ করি।
Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধবড়াইগ্রামে ১৫৫ টি পরিবারে গোপালপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের খাদ্য বিতরণ
পরবর্তী নিবন্ধতুমি যাবে !- সুমনা আহম্মেদ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে