“চুপ থাকা” কবি সুপ্তি জামান’এর কবিতা

0
2566
www.natorekantho.com, সুপ্তি

“চুপ থাকা”

কবি সুপ্তি জামান

চুপ থাকা মানে এক সমুদ্র কথাকে বুকে ধারণ করে চুপ করে থাকা।
চুপ থাকা মানে বাঁচাল বলার অপবাদ থেকে নিজেকে রক্ষা করা।
চুপ করে বসে থাকি আর ভাবি ‘ এই বেশ ভালো আছি’
আমি এখন চুপ করে থাকতে পারি!
চুপ করেই থাকতে হয়
তা না হলে অনাসৃষ্টি বাড়ে।
চুপ থাকা মানে আরো বেশি কথা বলা
স্বর্গ থেকে ভেসে আসে কথা
দূর অতীতের কথা
আগামীর কথা
না বলা কথা
বার বার বলা একই কথা
অনর্থক কথা
অথবা সব কথার অবসানে নিশ্চুপ থাকা।
চুপ করে থাকা মানে অনেক বেশি কথা বলা নিজের সাথে
চুপ থেকে তাই ক্লান্তিতে নিদ্রা নামে চোখে।
চুপ থেকে তাই স্বপ্ন দেখি একমনে
একদিন কোলাহলময় মুখরিত দিনে
অনর্গল বাঁচালের মতো কথা বলব
নিরবতার পাহার ধ্বসে পড়বে
শহরজুড়ে খিলখিল হাসির ফোয়ারা ছুটবে।
চুপ থাকা মানে সরব হওয়ার বাসনা বুকে চেপে রাখা।
চুপ থাকা মানে নিরবে সব সয়ে যাওয়ার মন্ত্র আওড়ে যাওয়া।
চুপ থাকা মানে ক্ষয়ে ক্ষয়ে বিলীন হয়ে যাওয়া।
চুপ থাকা মানে শূণ্যতার আরধনা করা।
চুপ থাকা মানে প্রয়োজনকে ছুটি দেয়া।
চুপ থাকা মানে দহনের আগুনে পুড়ে মরা।
চুপ থাকা মানে চারপাশের সকলকে অবিশ্বাস করা।
চুপ করে আছে যে তারও অনেক কথা আছে
শুধু বলবার মতো কেউ নেই তার কাছে।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধ“কাঠকরবী ফুল” কবি শাহিনা রঞ্জু‘র কবিতা
পরবর্তী নিবন্ধ“তারুণ্যের চন্দ্রিমা” কবি বেণুবর্ণা অধিকারীর কবিতা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে