নলডাঙ্গায় দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতারের দাবীতে ফুসে উঠেছে গ্রামবাসী

0
432
Madok

আর আহমেদ, নলডাঙ্গা (নাটোর) সংবাদদাতা
নাটোরের নলডাঙ্গায় দুই মাদক ব্যবসায়ী টিয়া ও মুক্তা কে গ্রেফতারের দাবীতে প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ করেছে গ্রামবাসী।বৃস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার মাধনগর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে চেউখালী ও কাজিপাড়ার শতাধিক গ্রামবাসী এ দুই মাদক ব্যবসায়ীর অত্যাচার নির্যাতন ও হামলার শিকারে অতিষ্ঠ হয়ে গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবীতে তারা এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন।এসময় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন দেওয়ান তাদের দাবীগুলো শুনে তা প্রশাসনের কাছে তুলে ধরে দুই মাদকব্যবসায়ী কে গ্রেপ্তারের আশ্বাস দিলে তারা ফিরে যায়।মাদকব্যবসায়ী টিয়া পশ্চিম মাধনগর কাজিপাড়া গ্রামের সলি রাজাকারের ছেলে ও মুক্তার হোসেন একই গ্রামের মুজিবুর রহমানের ছেলে।
মাধনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন বলেন,গত কয়েকদিন আগে কাজীপাড়া গ্রামের ওর্য়াড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাঈদ হোসেন ও তার ছোট ভাই শাজাহান আলী মাদক ব্যবসায়ী টিয়া ও মুক্তার সহযোগি সেলিম কে মাদক (গাঁজা) বিক্রয় নিষেধ করলে শাজাহান কে ছুরিকাঘাত করা হয়।সে এখন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে তার অবস্থা আশংকাজনক।
ওর্য়াড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাঈদ হোসেন,মাধনগরের চিহ্নিত মাদকব্যবসায়ী টিয়া ও মুক্তা মাদকব্যবসার প্রতিবাদ করায় গত ৩ মে আমার ছোট ভাই শাজাহান কে ছুরিকাঘাত করে রক্তাত্ত জখম করেন।এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে কিন্ত এখনও কাউকে গ্রেফতারতো দুরের কথা উল্টো আমাদের বাড়িতে পুলিশ হানা দিচ্ছে।এর প্রতিবাদে ও দুই মাদক ব্যবসায়ী টিয়া ও মুক্তাকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে কঠিন বিচারের দাবীতে মাধনগর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছি।
গ্রামবাসী কাসেম,সমজেদ,সবেদ আলী বলেন, মাদকের কারনে আমাদের সন্তানরা বিপদগামী হচ্ছে।চেউখালি গ্রামে এখন হাত বাড়ালেই মিলছে গাঁজা,ইয়াবা ও হোরোইন।প্রশাসন কে ম্যানেজ করে চালাচ্ছে এসব ব্যবসা।কেউ প্রতিবাদ করলে তার উপর নেমে আসে অমানুষিক নির্যাতন ও হামলায় শিকার হতে হয়।যার প্রতিবাদ করে সাঈদ হোসেনের ছোট ভাই শাজাহান এখন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মুত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার পশ্চিম মাধনগর কাজিপাড়া গ্রামে মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় দফায় দফায় হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে।মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় গত ৩ মে কাজিপাড়ার শাজাহান আলী কে ছুরিকাঘাত করে মাদক বিক্রেতা টিয়া ও মুক্তার সহযোগি সেলিম।এর দুই দিন পর মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় চেউখালি বটতলায় সংঘর্ষ হয়।সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ৫ জন আহত হয়। এর জের ধরে মাদক ব্যবসায়ীর পক্ষে পুলিশি হয়রানি ও গ্রেপ্তার আতংক বেড়ে যাওয়ায় গ্রামবাসী ফুসে উঠেছে।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধনাটোরের সিংড়া লালোর  ইউপির বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী তুলে দিলেন শুভ
পরবর্তী নিবন্ধসিংড়ায় হিলফুল ফুযুল এর কমিটি গঠন, রানা সভাপতি, জাকারিয়া মাসউদ, সাধারন সম্পাদক

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে