নাটোরে করোনা আক্রান্ত এলাকা লকডাউন, সকাল থেকে হার্ডলাইনে প্রশাসন

0
2789
নাটোর, করোনা

নাটোর কণ্ঠ: নাটোরের করোনা আক্রান্ত এলাকাগুলোকে রাতেই লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। আক্রান্তদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার সাথে সাথেই ঐ সমস্ত এলাকায় ছুটে যান প্রশাসনের লোকজন। আক্রান্ত পরিবার ও অন্যান্য এলাকাবাসীদের কে সাথে নিয়ে প্রশাসন লকডাউন নিশ্চিত করেছেন। এলাকা গুলোর মধ্যে রয়েছে নাটোর সদর উপজেলার তেবাড়িয়া ও ছাতনী, গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর এবং সিংড়া পৌরসভা।‌এছাড়া সকাল থেকে আরো কঠোর হচ্ছে প্রশাসনের নজরদারি।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাসরিন আক্তার বানু জানান, যেহেতু জেলার মধ্যে নাটোরের সিংড়ায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত এবং হাসপাতাল ও পৌর এলাকায় আক্রান্তদের অবস্থান তাই পৌর এলাকা হাসপাতাল সবগুলোকে লকডাউন করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, হাসপাতালের স্টাফ নার্স যিনি পৌরসভার গোডাউন পাড়া এলাকায় বসবাস করেন।

তাছাড়া একজন রোগী ইতিমধ্যেই মারা গেছেন। সম্ভবত ঐ রোগীর নমুনা সংগ্রহ করতে গিয়ে এই দুজন আক্রান্ত হয়েছেন বলে অনেকে আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

সিভিল সার্জন ডাক্তার মিজানুর রহমান আক্রান্তদের সবাই এখন পর্যন্ত সুস্থ রয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ই -মেইলে ঠিকানা এবং আক্রান্তদের সম্পর্কে সার্বিক খোঁজখবর নেওয়ার পরে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় ও পুলিশ প্রশাসনের সহায়তা নিয়ে আমরা পুরো এলাকা লকডাউন করেছি। এছাড়া আমাদের যা যা করণীয় আর যা যা করা দরকার আমার সবকিছু করছি করোনা যাতে ছড়াতে না পারে । জনগণের প্রতি তিনি উদাত্ত আহ্বান জানিয়ে বলেন আপনারা স্বাস্থ্য নীতি মেনে চলুন। ঘরে থাকুন খুব প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হবেন না আমরা সবাই মিলেই বিপদ কে পারি দিতে চাই।

পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, জানিয়েছেন, আর অবহেলা সহ্য করলে চলবে না, মানুষ যদি আইন না মানে, কথা না শোনে, তাহলে আমরা আরো কঠোর হতে বাধ্য হবো। আজ সকাল থেকেই পুলিশের কার্যক্রম তা প্রমাণ করবে। পুরো জেলা লকডাউন এর বিষয়টি আমরা সকালবেলা ঘোষণা করবো।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শাহরিয়াজ বলেছেন, সার্বিক তথ্য পাওয়ার পরপরই আক্রান্ত এলাকা সমূহ লকডাউন করা হয়েছে পুরো জেলা লকডাউনের বিষয়টি আমরা সিদ্ধান্ত নিচ্ছি সকালে বিস্তারিত জানাবো।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধসিংড়া বাসীর প্রতি খোলা চিঠি
পরবর্তী নিবন্ধনাটোর বাসীর প্রতি অনুরোধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে