নাটোরে ধ.র্ষ.ণ চেষ্টার অভিযোগে ২ জনের যাবজ্জীবন : ১ জনে ১০ বছর আটকাদেশ

0
115

নাটোর কন্ঠ : নাটোরের বড়াইগ্রামে এক শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে সোহাগ ও সাগর নামে দুইজনের যাবজ্জীবন ও রনি নামে একজনকে ১০ বছরের আটকাদেশ দিয়েছে আদালত। এ ছাড়াও যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্তদের প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দেওয়া হয়।

আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে নাটোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক মোহম্মদ আব্দুর রহিম এই দন্ডাদেশ দেন। যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্তরা বড়াইগ্রামের ঢুলিয়া মোল্লাপাড়া মহল্লার আব্দুর করিমের ছেলে সোহাগ,মোঃ নিজামের ছেলে সাগর ও ১০ বছরের আটকাদেশ প্রাপ্ত রনি একই এলাকার আকাইলী প্রামানিকের ছেলে।

মামলা সুত্রে জানা যায়,২০১৬ সালের ১০ এপ্রিল রাত ৯ টার দিকে এলাকার একটি শালিস বৈঠক চলাকালে সেখানে থাকা শিশুকে ডেকে নিয়ে যায় সোহাগ। পরে সোহাগ তার বন্ধু সাগর ও রনিকে সাথে নিয়ে পাশের বিলের মধ্যে চলে যায়। সেখানে তারা শিশুকে ধর্ষনের চেষ্টা চালায়।

এ সময় শিশুর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাদের দেখতে পায়। পরে তারা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শিশুর মা পারভীন বেগম বাদী হয়ে সোহাগ,সাগর ও রনিকে অভিযুক্ত করে নাটোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের পর আদালত বড়াইগ্রাম থানা পুলিশকে মামলাটি তদন্তের ভার দেন। পরে পুলিশ তদন্ত শেষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট প্রদান করেন।
দীর্ঘ ৭ বছর মামলার স্বাক্ষ্য প্রমান গ্রহণ শেষে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় বিচারক, সোহাগ ও সাগরকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ২০ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দেন। অপর অভিযুক্ত রনিকে ১০ বছরের কারাদন্ডের আদেশ দেন।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধনাটোরে আজ থেকে বাসন্তী পূজো শুরু
পরবর্তী নিবন্ধসিংড়ায় পুর্ব শ.ত্রু.তার জেরে বাড়িতে হা.ম.লা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে