“বনলতা নয় রানী ভবানীর নাটোর”-বেণুবর্ণা অধিকারী‘এর ভ্রমন কাহিনী -পর্ব ০১

0
1064
BenuBorna-Odhikari

“বনলতা নয় রানী ভবানীর নাটোর”
বেণুবর্ণা অধিকারী -১ম পর্ব

বেণুবর্ণা অধিকারী : কয়েকবার যাব যাব প্ল্যান করেও যাওয়া হয়নি সময়াভাবে নাটোরে। ছোটবেলা থেকে জীবনানন্দের বদৌলতে নাটোর মাথায় গেঁথে আছে “আমারে দু’দণ্ড শান্তি দিয়েছিল নাটোরের বনলতা সেন”। কিন্তু নাটোরে গিয়ে বনলতা নয় দেখেছি সর্বত্রই রানী ভবানীর সময়কার প্রাচীণ নিদর্শন। এক নারীর ক্ষমতায়ন।

BenuBorna-Odhikari

এই বছর কিভাবে যেন অফিসিয়াল সিদ্ধান্ত হয় সবাইকে আর্ন লিভ প্রতিবছরেই শেষ করতে হবে, জমানো যাবে না। এতে অনেকেই মনোক্ষুন্ন হয়, টাকাটা মিস হয়ে যাবে বলে। আমার কিন্তু শাপে বর, ছুটি আমার কাছে কাঙ্ক্ষিত টাকার চেয়েও।

BenuBorna Odhikari

বস নির্দেশ দেন কে কোন কোন মাসে ছুটি নেবে তার একটা প্ল্যান জমা দিতে। আমি মহা উৎসাহেই আমি ফেব্রুয়ারিতে ৫ দিন ছুটির এপ্লাই করি। সাথে ১ দিন সাপ্তাহিক ছুটিও যোগ হয়। প্রথমে যাই সুমনের গ্রুপে সুন্দরবন। ২ দিন ৩ রাতের ভ্রমন। ৩ দিনের সকালেই মংলায় পৌঁছে আগের পরিকল্পনায় সেখান থেকে বরিশালে চলে যাই।

BenuBorna-Odhikari

দুপুরে ভায়োলেট আমার জন্য স্পেশাল রান্নার ব্যবস্থা করে কিন্তু নেমে বাসের টিকেট করতে গিয়ে দেখি ১২ঃ৩০ টার বাসে গেলে আমরা ৭/৮ টায় পৌঁছাতে পারবো কিন্তু পরের বাস আছে ৪ঃ৩০ টায়, ওটাতে গেলে ১১ টা বাজবে। নতুন জায়গায় এত রাতে ভরসা পাইনি তাই ভায়োলেটকে বললাম তুমি রেডি হয়ে চলে আস নতুল্লাবাদে। আমি আর যাব না বাসায়।

BenuBorna-Odhikari

এইভাবে বাকি ৩ দিনের ছুটিকে কাজে লাগাতে চাই আর নাটোর জেলার কিছু এলাকা দেখতে চাই। নাটোরে আছে সেখানকার এক সাধু মাহাবুব ভাই, সে আবার অনলাইনের এক পত্রিকার সাথে জড়িত। প্রকৃতি, কবিতা এগুলোই তার বিষয়, তার সাথে প্রথম পরিচয়ই হয় দূর্লভ প্রাচীন ক্ষিরি বা খিরসা বৃক্ষ নিয়ে।

সেও চাচ্ছিল আমি নাটোরে গিয়ে এই গাছটা স্বচক্ষে দেখে আসি। এছাড়া আমারও উত্তরা গণভবনের গাছপালা আর চলনবিল দেখার খুব ইচ্ছে অনেকদিনের আর ভায়োলেটেরও ইচ্ছে এইখানে যাবার, সে দেশে আসার আগেই বলেছিল, ”দিদি তোমার সাথে ঘুরবো”।

BenuBorna-Odhikari

বাস পাবনায় যাবে তাই আমাদের নামিয়ে দিল দাশুরিয়ায় নাটোর থেকে প্রায় ৫০ কিমি দূরে, ভাগ্যিস মাহাবুব ভাই ছিল সেখানে। নইলে কি দূর্দশাই না হতো নতুন এলাকা তদুপরি রাত। যাক মাহাবুব ভাই গাড়ির ব্যবস্থা করে এসেছিল আমাদের নিতে, সেই একটা গেস্টহাউজে থাকার ব্যবস্থা করে দিল। তবে সেখানে যাওয়ার আগে নাটোর শহরে পঁচুর হোটেলে রাতের খাবার খেয়ে নিলাম,

BenuBorna-Odhikari

খাওয়া শেষ নাটোরের বিখ্যাত কাঁচাগোল্লাও খেলাম। পরে গেস্ট হাউজে গেলাম, থাকার ব্যবস্থাটা মনঃপূত হলো। গরমজলের জন্য গিজার আছে, এসিও। বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পকে জনপ্রিয় করতে হলে প্রতিটা হোটেল বা গেস্ট হাউজে এই দুইটা জরুরি। আমরা ফ্রেশ হয়ে কিছুক্ষণ আড্ডা দিলাম। পরের দিন কটায় বেরুবো তা ঠিক করে মাহাবুব বিদায় নিল।

পরের দিন প্ল্যান হলো ৩ টা জায়গা দেখবো। প্রথমেই চলে গেলাম আকাঙ্ক্ষিত ক্ষিরি বৃক্ষের কাছে। এটা নাটোরের সিংড়া উপজেলার ১ নম্বর সুকাশ ইউপির ৪ নম্বর ওয়ার্ডের দুলশী গ্রাম। এই গ্রামেই কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে এক দূর্লভ মহীরুহ।

BenuBorna-Odhikari

চারিদিকে সমান্তরাল কিন্তু এই গাছ ভূমি থেকে প্রায় ১৫ ফুট উচুতে এবং ৫০ ফুট উচ্চতা ও চতুর্পাশে আয়তনে প্রায় ১৫০ স্কায়ার ফিট এই খিরির গাছ। গ্রামবাসী ও আশেপাশের মানুষের বিশ্বাসের একটি বড় জায়গা জুড়ে সুপ্রাচীন কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে এই অচিন গাছটি।

জনশ্রুতি আছে, এই গাছটি বহু বছর আগে হক সাহেব নামের একজন কর্তন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল এবং লোকলস্কর নিয়ে গাছ কাটার উদ্দেশ্যে এসেছিলেন, কিন্তু কাটতে পারেনি। পরে দু-সপ্তাহের মধ্যে সেই ব্যক্তি মারা যায়,

BenuBorna-Odhikari

তখন থেকে গ্রামবাসী এই গাছটির উপরে একটি বিশ্বাস স্থাপন করে, এতে এই গাছটি অন্তত বৃক্ষখাদকের কোপানল থেকেতো রক্ষা পাচ্ছে এটাই শান্তি। আমরা গিয়ে দেখি এর এখন ফলের সিজন,যদিও সবে ফলের কুড়ি এসেছে সাথে কিছু ফুলও আছে গাছে।

সব সময় এমন প্রাচীণ সান্নিধ্যে গেলে নিজেদের আয়ূটাকে কত স্বল্প ও তুচ্ছ মনে হয়। তার চেয়ে বৃক্ষ উপযুক্ত পরিবেশ পেলে দীর্ঘদিন টিকে থাকে এবং কত প্রাণীর জীবনদাত্রী এরা। নিজেদের দীনতা, স্বার্থপরতা প্রকট হয়ে ওঠে।

BenuBorna-Odhikari

আমরা প্রকৃতির জন্য কি করছি? উপকার না, নিরন্তর ক্ষতি করে চলেছি নিজেদের স্বার্থেই। এতে কত বৃক্ষ, প্রানী গৃহহারা হচ্ছে, প্রকৃতি উত্তপ্ত হচ্ছে, প্রাকৃতিক বৈরি পরিবেশ সৃষ্টি করে চলেছি অবিরাম। নিজেদের ক্ষুদ্রতার জন্য এদের কাছে ক্ষমা চাই।

ক্রমশঃ

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধ“দুঃখ না পেলে এখন আর ভালো লাগে না”- আক্তারুজ্জামান লেবু’র কবিতা
পরবর্তী নিবন্ধ“শুকনো ধ্বনি দরিয়ায় ডুবে যায় “- ওয়াহিদ জালালের কবিতা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে