বাংলাদেশে সরিষাগুঁড়া প্যাকেটজাত বাজারে নেই, গৃহিণীদের ক্ষোভ

0
117

বাংলাদেশে সরিষাগুঁড়া প্যাকেটজাত বাজারে নেই, গৃহিণীদের ক্ষোভ

নাটোর কণ্ঠ: আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে বাঙ্গালীদের রসনা বিলাসের জন্য সরিষা বাটার বিকল্প সরিষা গুঁড়া প্যাকেটজাত পাওয়া গেলেও বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোন কম্পানি সরিষা গুঁড়ো বা সরিষা ডাস্ট প্যাকেটজাত বের করেনি। এতে গৃহিণীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ফলে সরিষা ইলিশের স্বাদ থেকে বঞ্চিত হন অনেক ভোজনবিলাসী বাঙালি।

সকল স্তরের গৃহিণীদের অভিমত আজকের দিনে কর্মব্যস্ত জীবন যাপন করতে সহজ রান্নার উপকরণ হিসেবে প্যাকেটজাত মশলা রান্নার ক্ষেত্রে বিপ্লব সাধিত করেছে। যেমন ঝাল, হলুদ, জিরা, ধনিয়া, গরম মসলা ইত্যাদি প্যাকেটজাত বাজারে আশায় রান্নার ক্ষেত্রে সহজ হয়েছে। অল্প সময়ে এসমস্ত মসলা বাটার ঝাঁকুনি এড়িয়ে গুঁড়া মসলা ব্যবহার করে সহজে রান্না করতে পারেন গৃহিণীরা। চাকুরীজীবী গৃহিণীরা নির্ভর করেন এই সমস্ত গুড়া মসলার উপরে। এছাড়া স্কুলগামী সন্তানের মা অল্প সময়ে রান্নার ক্ষেত্রে ব্যবহার করেন এ সমস্ত মসলা। তাছাড়া বড় বড় ফাংশনে দাওয়াতি অনুষ্ঠানে এসমস্ত গুড়া মসলার ব্যবহার হয় প্রচুর পরিমাণে।

আমাদের দুর্ভাগ্য বিভিন্ন মসলা গুঁড়া প্যাকেটজাত বাজারে এলেও সরিষার গুঁড়া প্যাকেটজাত বাজারে এখন পর্যন্ত নিয়ে আসেনি কোন কনজ্যুমার কোম্পানি। বাঙালির রসনা বিলাসের ক্ষেত্রে বিভিন্ন সময় রান্নাঘরে একান্ত ভাবে প্রয়োজন সরিষার গুড়ো বা সরিষা ডাস্ট। সরিষা ইলিশ, কই মাছে সরিষা, সজনে ডাটা চচ্চড়িতে সরিষার ব্যবহার সহ বিভিন্ন তরিতরকারি তে সরিষা বাটা বা সরিষা গুঁড়োর বহুল প্রচলন রয়েছে বাঙালি সমাজে।

এটি প্যাকেটজাত বাজারে এলে সহজেই বাজার থেকে কিনে রান্না করা যাবে এ সমস্ত তরিতরকারি। ফলে কমবে গৃহিণীদের দুর্ভোগ। কারণ আজকের গৃহিণীরা আরামপ্রিয়, তারা চান অল্প কষ্টে ভাল রান্না করতে। তাই সরিষা ইলিশ এর লোভনীয় স্বাদ থেকে বঞ্চিত হন অনেক পরিবারই। সরিষা বাটার ঝামেলায় অনেকেই এ রান্নাটি এড়িয়ে চলেন। এই ঝামেলা থেকে মুক্তি পেতে অচিরেই খুব অল্প সময়ের মধ্যে কোন কোম্পানি প্যাকেটজাত সরিষা গুঁড়া বাজারে আনবে আমনটাই প্রত্যাশা গৃহিণীদের।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে