রহমান হেনরী’র দু’টি কবিতা

0
234
Rahaman
 রহমান হেনরী’র দু’টি কবিতা
কার্যকারণ

—‘‘মাতাল হলে, নিজের পদক্ষেপে নজর রাখা যায় না।’’
যারা বলে; ঠিক বলে না। প্রজ্ঞাবাণীও ভুল হতে পারে—

কটাক্ষে তাকাচ্ছো। হেসে উঠছো খলবলিয়ে; আর ভাবছো—
সমাজটা এতই টালমাটাল যে, মাতাল ভাবছে তোমাকে!

নিজের স্বাভাবিকত্বের ব্যাপারে বেশ সাবধানী তুমি
কিন্তু দেখো, তোমার পা দুটো টলে যাচ্ছে— বারবার

মুখে দুর্গন্ধ ছুটছে কি ছুটছে না; বড় কথা নয়—
একটু শান্ত-শিরে হাঁটো!

শুধু সুরা নয়— লাগামহীন ক্ষমতাও নেশা ধরাতে জানে;
সম্বিতে ফেরো। খেয়াল রাখো: অসংলগ্ন পা দুটোর দিকে
.

স্বত্বের বিড়ম্বনা

আগে একতলা ছিলো— ঘরদোর, নিজেরাই পাহারা দিতাম;
এখন বহুতল। পাহারাদারও আছে— কয়েক রকমের;

ওদের জন্য সুযোগসুবিধার সুড়ঙ্গ খুলে দিতে দিতে
এখন শুধু নিজেদের পরিধেয়গুলোই বাকি; কিন্তু
সুবিধা হচ্ছে না। অস্বস্তি বাড়ছেই…

নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা এবং আরও সব নিত্য-নতুন
অযুহাতে, ক্রমশ বিপজ্জনক হয়ে উঠছে
চৌকিদারগুলো

ব্যক্তিগত কত কিছুই তো হারালাম! স্বেচ্ছায়
ছেড়েও দিলাম অনেক— ভাবছি: বাড়ির মালিকানাটাও
ওদেরকেই দিয়ে দেবো

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধ“পানসে”- শাহিনা খাতুনের কবিতা
পরবর্তী নিবন্ধআদনান ওয়াসিফ তিতাসের আজ শুভ জন্মদিন নাটোরকন্ঠ পরিবারের শুভেচ্ছা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে