“রাজা থাকে রাক্ষসও থাকে”- চৈতালি গোস্বামী’র কবিতা

0
956
chaytali

রাজা থাকে রাক্ষসও থাকে
চৈতালি গোস্বামী

ছোটবেলায় বড্ড ভূতের ভয় ছিল
দিদির হাত ধরে ঘুমোতে চাইলেই বলত
ভূত বলে কিছু নেই।
খুব বায়না করলে শেষমেষ
ওর ফ্রকের একটা ফিতে ধরে
ঘুমোতে দিত।
রাতে ঘামে ভিজে উঠতাম ভয়ে
মশারির সামনে দাঁড়িয়ে ও কে?
অন্ধকার ভালবাসতে পারি নি।

আজও পারি না।

যে সময় আকাশ ছুঁয়েছে সভ্যতা
তার পতনের শব্দ কানে বাজে।
দু:স্বপ্নে ভেসে উঠছে কবরস্থান
জিভ ছোটাচ্ছে কান্না আর
বুকের নিচে জন্ম নিচ্ছে রোষ
হত্যা চেনে না হত্যাকারীর হাত
মোমবাতির বোবা স্লোগানে হাঁটাপথ গমগম..

নির্যাস দাঁড়ালো
অন্ধকার থাকবে।
পিশাচ শ্বাপদেরাও।
আমি ফ্রক খামচে ধরে জেগেই কাটাবো
তুমি কিচ্ছু না করে
ময়না পুষবে দাওয়ায়।
সেও আওড়াবে তোমার শেখানো ভাষাতে।

পশ্চিমবাঙলা,ভারত।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধ“বিষাদ সংবাদ”- বিপুল অধিকারী’র কবিতা
পরবর্তী নিবন্ধমা সরস্বতী বিসর্জন! ও কিছু কথা (ভিডিও সহ)

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে