লালপুর ইউএনও শুদ্ধাচার পুরস্কারে ভূষিত হলেন

0
168

নাটোর কন্ঠ : তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে নারী ক্ষমতায়নে কাজ করছে সরকার। অনেক নারী, সমাজ এবং রাষ্ট্রের বিভিন্ন স্তরে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। কিন্তু প্রায় তিন শত বছর আগে এই নাটোর, অর্ধভঙ্গেশ্বরী মহারানী ভবানী শাসন করতেন।

তাই কথিত আছে অর্ধভঙ্গেশ্বরী মহারানী ভবানীর নাটোর। সাত রাজকন্যার নাটোর। ইতিহাস বলছে- নাটোর শহরের প্রাণকেন্দ্রে বসেই, বাংলার ৭টি পরগনা শাসন করতেন মহারানী ভবানী।

নাটোরের সার্বিক উন্নয়ন ও আধুনিকায়নে সেই সময় তাঁর ছিল বৃহত্তম ভূমিকা। তাঁরা সুন্দরী নামে মহারানীর একটি মেয়ে ছিল। সেই তাঁরা সুন্দরীর বিয়ে হয়েছিল, বর্তমান নলডাঙ্গা উপজেলার, খাজুরা গ্রামের, লাহিড়ী বাড়িতে। এই লাহিড়ী বাড়িতে আরো ৬ রাজকন্যার বিয়ে হয়েছিল। তাই অনেকে বলেন ৭ রাজকন্যার নাটোর।

সেই নাটোরে বর্তমান ৭টি উপজেলায়, শীর্ষ কর্মকর্তা হিসেবে, কর্মরত আছেন ৭ জন নারী। ন্যায় নিষ্ঠা আর দক্ষতার সাথে, রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে, নাটোরের সার্বিক উন্নয়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। তাদের মধ্যে একজন লালপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শামীমা সুলতানা।

সুদীর্ঘকাল চাকরি জীবনে তার সততা, আন্তরিকতা এবং কর্মদক্ষতার কারণে তিনি শুদ্ধাচার পুরস্কার এ ভূষিত হলেন। ২৫শে জুন রবিবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম সুলতানার হাতে এই শুদ্ধাচার সম্নাননা তুলে দেয় জেলা প্রশাসক আবু নাছের ভূঁঞা।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাছুদুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) সামিউল আলিম, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক আশরাফুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোছাঃ রওনক জাহান সহ জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাগ।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধনাটোরে ইউএনও’র ড্রাইভারকে উপজেলার ভেতরে ধা.রা.লো অ.স্ত্র  নিয়ে ধাওয়া করলো দু.র্বৃ.ত্ত.রা 
পরবর্তী নিবন্ধনাটোরে আ.ত্ম.হ.ত্যা.য় প্ররোচনার দায়ে ৩ জনকে ১০ বছর করে কারাদন্ড দিয়েছে আদালত

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে