সাংবাদিক হেনস্তা : তদন্ত কমিটি গঠন

0
81

মো. তুষার ইমরান : নাটোরের লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩ সাংবাদিক হেনস্তার ঘটনা তদন্ত ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সুরুজ্জামান শামীম।

তিনি জানান, ‘নাটোর সিভিল সার্জন কার্যালয় হতে ঘটনা তদন্তে নাটোর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মো. রাসেল কে সভাপতি ও নাটোর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ সোবহান আলী,

নাটোর সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা সরকার মোঃ সফিকুল ফেরদৌস কে সদস্য সচিব করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটিকে ৫ কার্য দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

এর আগে, রোববার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২ টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইমারজেন্সি বিভাগে জমি নিয়ে দুই পক্ষের মারামারির ভিডিও ধারণ করতে গিয়ে ওয়ালিউজ্জামান পান্নার নামে এক চিকিৎসকের হাতে ৩ সাংবাদিক হেনস্তার শিকার হন।

হেনস্তার শিকার সাংবাদিকরা হলেন, বাংলাদেশ টুডে ও দৈনিক সোনার দেশ পত্রিকার লালপুর প্রতিনিধি সজিবুল হৃদয়, দৈনিক মানবকন্ঠের লালপুর প্রতিনিধি নাহিদ হোসেন, সাপ্তাহিক পদ্মাপ্রবাহের ফটো সাংবাদিক বাবর আলী।

এবিষয়ে ভুক্তভোগী সাংবাদিকরা জানান, ‘উপজেলার কসাইপাড়া গ্রামে সাইফুল ইসলাম ও দুলাল আলীর জমিজমা নিয়ে মারামারির ঘটনায় কয়েকজনকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়।

এমন খবর পেয়ে স্থানীয় সংবাদ কর্মীরা তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে গিয়ে দেখে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দুই পক্ষ পুনরায় মারামারিতে লিপ্ত হয়। এসময় সংবাদকর্মীরা ভিডিও ধারণ করে।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ওয়ালিউজ্জামান পান্না সাংবাদিকদের দায়িত্ব পালনে বাধাঁ দিয়ে ৩ দিকে রুমের মধ্যে ডেকে নিয়ে দরজা আটকিয়ে-

অনুমতি না নিয়ে ভিডিও ধারণ করায় সাংবাদিকদের পরিচয় পত্র ও মোবাইল ফোন কেড়ে নেন, পরে মোবাইল ও পরিচয়পত্র ফেরত দিয়ে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন।’

এছাড়া চিকিৎসক ওয়ালিউজ্জামান পান্নার বাড়ি হাসপাতালের নিকটবর্তী হওয়ায় হাসপাতালে আগত রোগীরদের সাথেও দূরব্যবহার করেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এবিষয়ে নাটোর জেলা সিভিল সার্জন ডা. রোজী আরা খাতুন বলেন, ‘এঘটনায় ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধবড়াইগ্রামে সরিষা’র বাম্পার ফলন
পরবর্তী নিবন্ধনাটোরে কৃষি জমিতে পুকুর খনন : নীরব আছে প্রশাসন !

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে