৭ সন্তান থাকতে অসুস্থ বৃদ্ধ পিতা ভাঙ্গা ঘরে উলঙ্গ চিকিৎসাহীন পড়ে থাকে

0
2096
Oldman

নাটোরকন্ঠ:

কতকষ্টে মানুষ করেছিলেন ৭ টি সন্তান, বিপদের দিনে তারা অসহায়ের সহায় হয়ে থাকবেন। কিন্তু সে আশা পূরণ হয়নি লালপুর উপজেলার ধুপইল মন্ডল পাড়া এলাকার দেলবার মল্লিকের। যৌবনে জমিজমা ভালোই করেছিলেন। স্ত্রী মারা যাওয়ার পর সন্তানরা সে সমস্ত জমি ভাগ করে নিয়েছেন। সন্তানরা চাষবাস করছেন, কেউ কেউ অন্য পেশার সাথেও জড়িত। সবাই করেছেন বিয়ে, তাদের আলাদা সংসার হয়েছে, সবারই অবস্থা ভালো। তবু বৃদ্ধ ব্যক্তিটির দেখবার জন্য কেউ নেই।

স্থানীয়রা জানায়, বেশ কিছুদিন থেকেই অসুস্থ দেলবর মল্লিক। তেমনভাবে চিকিৎসা করেন নি কেউ। ভাঙ্গা ঘরের একটি চৌকির উপরে প্রায় উলঙ্গ ফেলে রেখেছে সন্তানেরা।বড় ছেলে আলম জমি জিরাত আছে দয়ারামপুর বাজারে করেন কুলিগীরী। ছেলে পুলে নিয়ে তার সংসার, কিন্তু বৃদ্ধ পিতাকে দেখে না। একই ভাবে আসাদুল, সাইফুল, হামিদুল, আশিক,সোহরাব কেউই বাপকে দেখে না। একমাত্র মেয়ে বিয়ে হয়েছে ।

এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে সন্তানদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। আর স্থানীয় ইউপির ওয়ার্ড মেম্বার, আকরাম হোসেনের মোবাইলে বারবার কল করেও এ বিষয়ে তার কাছে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তিনি ফোন ধরেননি। এদিকে অসহায় বৃদ্ধটির সুচিকিৎসা ও দেখভালের ব্যবস্থার জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন স্থানীয়রা। তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন কেন ৬টি সন্তান তার বৃদ্ধ পিতাকে দেখবেন না কেন অসহায় অবস্থায় ফেলে রাখবেন। প্রশাসনে এসে বিষয়টির ব্যবস্থা নেবেন এমন প্রত্যাশা তাদের।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধনাটোরের নলডাঙ্গায় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনার খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
পরবর্তী নিবন্ধবিদ্যুৎপৃষ্ট হলেন পপি

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে