এবারের একুশে বইমেলায় -সালমা সুলতানার ‘দহন’ গল্পগ্রন্থ, রকমারিতে পাওয়া যাচ্ছে

0
457
সায়মা

লেখিকার নিজের কথা

রকমারিতে পাওয়া যাচ্ছে আমার দহন গল্পগ্রন্থটি।
প্রি অর্ডার মূল্য: ১৬৭ টাকা

—এ তো আমার জীবনের কাহিনী, আপনি জানলেন কি করে!
—আপনার গল্পের ‘ বড় আপার’ মত আমার বড় আপার জীবনটাও এমন।
—জানেন, মৃন্ময়ী যেন আমারই প্রতিচ্ছবি! আমার ভালবাসাও আমাকে ছেড়ে গিয়েছে এমনি করেই।
—অহনার মত এক সময় আমিও ভুল করেছিলাম মিথ্যে অহংকারে।

এমনি অনেক প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত হয়েছে আমার এ গল্পগ্রন্থের গল্পগুলো নিয়ে। সম্পর্কের বোঝাপড়া, টানাপড়েনের এক ছোট্ট খেরোখাতা আমার ‘দহন’ গল্পগ্রন্থটি।

জীবনের কোলঘেষে লেখা গল্পগুলো আশাকরি পাঠক মনের চাহিদা মেটাতে সক্ষম হবে।

২০২০ সালের একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হতে যাচ্ছে আমার ‘দহন’ গল্পগ্রন্থটি।
*************************************************

দূর থেকে ভেসে আসছিল ভাটিয়ালি গানের
সুর।
—গান করো এখনো?
নীলা নিরুত্তর, দৃষ্টি আনত! সে দৃষ্টির গোপন অগ্নিবর্ষণ পুড়িয়ে ছারখার করে দিচ্ছিল আমায়।

হয়তো আমাকে কিংবা আমার প্রশ্নের উত্তর এড়াতে গোছানো শাড়ীর ভাঁজ অহেতুক গোছাচ্ছিল। বার বার ঠিক করছিল শাড়ীর আঁচল। শাড়ীতে অদ্ভুদ সুন্দর লাগছিল ওকে। পারতো না বলে শাড়ী খুব একটা পরতো না। দু’একদিন হয়তো পরেছিল আমার অনুরোধে। তবে আজকের মত এতটা পরিপাটি করে নয়। সামলাতে না পেরে বকতো আর বলতো—‘তোমার জন্য, শুধু তোমার জন্য! এই কুচি ঠি ক করে দাও,সেইফটি পিন লাগিয়ে দাও,ব্যাগ ধরো। উজবুক কোথাকার! আর বলবি কোনদিন শাড়ী পরার কথা।’ মনে হল কুচির ভাঁজ গুলো ঠি ক করার ছলে ওকে একটু ছুঁয়ে দেই। কানের কাছে গুঁজে দেই ওর এলোমেলো চুল গুলো।কিন্তু এটা এখন অভিলাষী ইচ্ছে ছাড়া আর কিছুই নয়। আগের সেই উচ্ছলতা নেই ওর মধ্যে। চোখ দুটো আগের মতই। কী গভীর! কী মায়াবী! তবে সেই চোখে আর অভিমান নেই,অভিযোগ নেই,কান্না নেই।ভীষণ পরিপক্ক,স্হির।….

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধ“প্রেমিকা”- অনিন্দিতা সেনের কবিতা
পরবর্তী নিবন্ধসবাইকে অল্পতেই আপন ভাবি, এটা আমার গুণ-আবু জাফর সিদ্দিকী

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে