” করোনার বিলুপ্তি” ফাহাদ হোসেন ফাহিমের কবিতা

0
643
Fahim

” করোনার বিলুপ্তি”

ফাহাদ হোসেন ফাহিম

আর কতকাল তুমি স্হবির পড়ে রবে পৃথ্বী,
একটু হেসেই দেখোনা এবার!
অপ্রতীক্ষিত এই নিকষকালো আধার কাটবে,
হবেই অবসান এই প্রতীক্ষার।
আমরা তো তোমার-ই অপত্য
তাহলে কেন করছো গো রাগ!
পৃথ্বী স্তব্ধ হয়ে চুপ করে থেকে-
বলে, ‘আমায় তোরা করে চলেছিস দূষিত
পদে পদে করেছিস কলুষিত।
তবুও তোদের প্রতি আছে অনুরাগ’
‘তাইতো বেঁচে আছি তোদেরকে নিয়ে,
করোনা যাচ্ছে এই নরম বুকে বয়ে!
চারদিকে মরাকটালের মত,
মরে চলেছিস তোরা অগণিত,
মনে কি আমার আর সয়!’
পৃথ্বী কাঁদে বৃষ্টির সাথে,মানুষ পারছে না কাঁদতে
লাখের পর লাখ মরছে মানুষ করোনার অভিঘাতে।
পৃথ্বী বলে,’ মৃত্যুর নিনাদে অনুদিন কাঁদে মোর মন!
এই কি ছিল আধুনিক বিজ্ঞানের আয়োজন! ‘
ও বলে, ‘সব দোষ যে মোদের, আমরাই বড় দোষী
তোমাকে ধ্বংস করে ওরা হয়েছিল মহাখুশি।
কালো আত্মা হয়ে ওরা ছুটছে মাটির পানে।
কতকাল রবে করোনা কেই বা তা জানে।
পৃথ্বী বলে, ‘প্রভুর কাছে করতে পারবি কি শেষবারের-
মত এক শপথ!
তাহলেই পৃথিবী থেকে কেটে যাবে এই মহা বিপদ।’
ও বলে, ‘তারাতাড়ি বলো কি সে জিনিস!’
পৃথিবী বলে,’সবুজকে নিয়ে বাঁচবি,
সবুজ চোখে হাসবি
করতে পারবি প্রমিস!’
ও বলে এবার বেঁচে ফিরলে,
পৃথিবীতে ছড়িয়ে দেবো ভালবাসা আছে যত,
পরহিতে করবো কাজ,করলাম আমি ব্রত।
তাহলে চোখ বন্ধ করে দেখ খুজেঁ পাবি নতুন ধরা,
আজ থেকে পৃথিবী রক্ষার দায়িত্ব পালন করবি তোরা।
পৃথিবী থেকে আজ চলে গেলো করোনা,
পৃথিবী কে আর কাঁদাবি না,
পৃথ্বী কে কাঁদানো আজ থেকে মানা।
লেখকঃ ফাহাদ হোসেন ফাহিম
বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
পশুপালন অনুষদ
প্রথমবর্ষ।
Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধচলনবিলে ধান কাটলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক
পরবর্তী নিবন্ধরোজা বিষয়ক উপলব্ধি -শাহিনা খাতুন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে