“চেনা-অচেনার সন্ধিক্ষণে” কবি মৌ সাহা‘র কবিতা

0
754
www.natorekantho.com

“চেনা-অচেনার সন্ধিক্ষণে”

কবি মৌ সাহা‘র কবিতা

বারবার অপলক দৃষ্টিতে চেয়ে বহুক্ষণ-
চিনতে কি পেরেছ আমার সত্তা গুলো?
উদাসী হাওয়ায় ভেসে আসা,
আমি এক বনফুল যেন-
নিভৃতে-নিরবে বয়ে যাওয়া নদীর মত,
পথভোলা এক পথিকের বেশে এসেছি দ্বারে।
আমার আনাগোনা যেন তোমারই মন পাড়াতে;
আমার চোখে একবার চোখ রেখে দেখ-
সাতরঙা রঙে রাঙ্গিয়েছি নিজেকে।
তোমার কি মনেপড়ে সেই বসন্তের দিন?
এখনো কৃষ্ণচূড়া ঝুলে থাকে সেই গাছটাতে,
লজ্জায় লালচে আভা ওষ্ঠদ্বয় মাঝে।
থেকে থেকে ভেসে আসে চেনা সুরেলা ধ্বনি।
প্রতিক্ষার প্রহরের অবসান ঘটে।

যান্ত্রিক শহরের বুকে অচেনা ঘাসফড়িং,
ডানামেলে উড়ে যায় উচ্ছ্বসিত মনে।
দিগবিদিক ছুটতে থাকে বলাকারা,
নিকোটিনের ধোঁয়া গ্রাস করে প্রান্তর,
দক্ষিণা বাতাসে উড়ে যায় শুভ্র পালক-
ধুলোমাখা ডাকবাক্সে উড়ো চিঠি আসে,
মন খারাপের বার্তা দিয়ে যায় –
ঘন কুহেলিকার চাদরে ঢেকে যায় প্রকৃতি।
রাত নেমে আসে শুনশান শহরের বুকে।
অচেনা ঘনকালো আঁধারে ঢাকা পথ।
নির্ঘুম কেটে যায় প্রতিটি প্রহর।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধহঠাৎ ভ্রমন কুয়াকাটায় -বেণুবর্ণা অধিকারী “পর্ব ০১”
পরবর্তী নিবন্ধশিশু ছড়াকার রাকেশ সাহা’র ছড়া

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে