নলডাঙ্গায় ঝুঁকিপূর্ণ বৈদ্যতিক লাইন দিয়ে সেচে বাঁধা দেওয়ায় ৪ জন কে পিটিয়ে জখম

0
498
naldhanga

থানায় মামলা হলেও এখনও কেউ আটক হয়নি
নলডাঙ্গা (নাটোর) সংবাদদাতা
নাটোরের নলডাঙ্গায় ঝুঁকিপূর্ণ বৈদ্যতিক লাইন দিয়ে সেচ দিতে বাঁধা দেওয়ায় ৪ জন কে পিটিয়ে জখম করেছে পতিপক্ষরা।গুরুতর আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠায়।এ ঘটনায় থানায় মামলা হলেও ১২ দিনেও এখনও কেউ আটক হয়নি।গত ৩০ মার্চ উপজেলার পশ্চিম মাধনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।আহতরা হলেন, পশ্চিম মাধনগর গ্রামের শামসুল মৃধা (৬০),স্ত্রী জুবেদা (৫৫),ছেলে শামীম (২৫),ভাই কুদ্দুস ।

নলডাঙ্গা থানা পুলিশ ও আহতদের পরিবার সূত্রে জানা যায়,গত সোমবার উপজেলার পশ্চিম মাধনগর গ্রামের পতিপক্ষ জলিল জর্দ্দার সেচ পাম্পের মিটার থেকে ৩০০ গজ দুরে লুচ তার দিয়ে অবৈধভাবে ঝুঁকিপূর্ণ বৈত্যতিক লাইন নিয়ে জমিতে সেচ কাজ করছিল।ঝুঁকিপূর্ণ অবৈধ বৈদ্যতিক লাইন দিয়ে সেচ কাজ করার নিষেধ করে শামসুল মৃধা ও তার ছেলেরা।আর এতে ক্ষিপ্ত হয়ে পতিপক্ষ জলিল জর্দ্দার তার ছেলে ও ভাইরা লাঠিসোটা হাসুয়া নিয়ে হামলা করে ওই ৪ জন কে পিটিয়ে ও কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয়রা নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এব্যাপারে নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ন কবির ঘটনার সত্যতা স্বীকার বলেন,এঘটনায় শামসুল মৃধার ছেলে জাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে ৯ জন কে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।করোনা পরিস্থিতিতে সবাই ব্যস্ত থাকায় আসামীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধজাগো বাহে কোনঠে সবায় সংগঠনের আরও একটি নতুন উদ্যোগ সমাজ সচেতনতায়।
পরবর্তী নিবন্ধসিংড়ায় বাড়ি বাড়ি সবজি পৌঁছে দেয়ার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ হাসান ইমামের

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে