নাটোরের গুরুদাসপুরে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার অভিযোগ

0
157
গুরুদাসপুর

নাটোর কন্ঠ : নাটোরের গুরুদাসপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী ও সমর্থকদের বাড়ি ঘর ও অফিস ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে নৌকা প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে। অপরদিকে নৌকার অফিস পুড়ানোর অভিযোগ উঠেছে বিদ্রোহী প্রার্থী ও সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

স্থানীয়দের অনেকে অভিযোগ করেন, বুধবার রাতে ধারাবারিষা ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী হাজেদা বেগমের সমর্থক উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল আজিজের নির্বাচনী অস্থায়ী কার্যালয় ভাংচুর ও বৃহস্পতিবার সকালে নৌকার সমর্থকরা ধারাবারিষা ইউনিয়নের দাদুয়া গ্রামের আলহাজ্ব আমিনুল হকের বাড়ি ঘর ভাংচুর করেছে বলে বিদ্রোহী প্রার্থী অভিযোগ করেন।

মশিন্দা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী প্রভাষক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, নির্বাচনে জয়-পরাজয় থাকবেই। বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল বারী ও তার সমর্থক জালাল উদ্দিন তাদের জয় নিশ্চিত হওয়ার পর থেকেই তার কর্মী সমর্থকদের বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করছে। তাছাড়াও বুধবার গভীর রাতে ইউনিয়নের তিনটি জায়গায় কাঠের তৈরি নৌকা ও নৌকার অফিস আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে। তিনি প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানান।

অপরদিকে ধারাবারিষা ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী হাজেদা বেগম অভিযোগ করে বলেন, তার অনেক কর্মী সমর্থক বাড়ি থেকে ভয়ে পালিয়ে রয়েছে নৌকা প্রার্থীর সমর্থকদের মারধরের ভয়ে। ইতিমধ্যেই নৌকা প্রার্থীর সমর্থকরা তার কয়েকজন কর্মীসমর্থকের বাড়ি ঘর ভাংচুর করেছে।

ধারাবারিষা ইউনিয়ন পরিষদের নব-নির্বাচীত চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন অভিযোগ অস্বিকার করে বলেন এমন কোন ঘটনা ঘটেনি। অপরদিকে মশিন্দা ইউনিয়নের নব-নির্বাচীত চেয়ারম্যান আব্দুল বারীও অভিযোগ অস্বিকার করে বলেন তিনি বা তার কোন সমর্থক এমন কাজ করেনি।

এ বিষয়ে গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আব্দুল মতিন জানান, দুইটি ইউনিয়নেই পুলিশ প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত করে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধছাত্র বলাৎকার : শিক্ষক গ্রেপ্তার
পরবর্তী নিবন্ধপ্রতিমন্ত্রী পলকের সুস্থতা কামনায় ৮শতাধিক মসজিদে দোয়া

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে