হজ গমনেচ্ছু হাজী সাহেবদের সাথে মতবিনিময়

0
123

নাটোর কন্ঠ : নাটোরের সিংড়ায় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী এ্যাড. জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, “আমি ইসলামের খাদেম হিসেবে আমৃত্যু মানুষের সেবা করে যেতে পারি। আমার প্রাণের সিংড়াকে উন্নত, আধুনিক নান্দনিক, মানবিক এবং স্মাট হিসেবে গড়ে তুলতে পারি।”

শুক্রবার (১০ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সিংড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে আয়োজিত সিংড়া উপজেলা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার ২০২৪ ইং সনে হজ গমনেচ্ছু হাজী সাহেবদের সাথে মতবিনিময়, উপহার সামগ্রী বিতরণ, সংবর্ধনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টঙ্গি ইজতেমার জায়গার ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন। তিনি ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠাতা করেছেন। ইসলাম ধর্মের সম্প্রসারণ করার জন্য এবং কাকড়াইল মসজিদসহ অসংখ্যক মসজিদ প্রতিষ্ঠান করেন। তিনি আমাদের দেশের স্বাধীন সার্বভৌমত্ব বাংলাদেশ উপহার দিয়েছেন।”

পলক বলেন, “সারাবিশ্বের মুসল্লিম জাহানের মধ্য ঐক্য, শান্তি এবং যারা অত্যাচার, কষ্টের মধ্য আছেন, তাদের যেন মুক্তি দান করেন। আমাদের ফিলিস্তিনি ভাই-বোন, শিশুদের বিরুদ্ধে ইসরাইল যে অপহত্যা চালাচ্ছে। তাদের থেকে আমাদের ফিলিস্তিনি ভাই-বোনদের রক্ষা করুন। এবং তারা মুক্ত স্বাধীন ভাবে ভূ-খন্ডে বসবাস করতে পারেন।”

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সারা বাংলাদেশে ৫৬০টি মডেল মসজিদ কমপক্সে নিমার্ণ করছেন। আমাদের মাদ্রাসা, মসজিদে ইতিহাসের সর্বচ্চ বরাদ্দ দিয়েছেন। হাজিদের জন্য সুন্দর, সহজ, স্বচ্ছ প্রক্রিয়া করার জন্য ডিজিটাল হজ্বের সকল কার্যক্রমের তিনি নিজে তদারকি করছেন।”

আরাফাতি হাজী কল্যাণ সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাহ্ব অধ্যাপক মো. মকবুল হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- সিংড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ ওহিদুল রহমান, সাধারণ সম্পাদক ও সিংড় পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস,আরাফাতি হাজী কল্যাণ সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলহাজ্ব এড. হারুন-অর-রশিদ প্রমুখ।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধনাটোর সদরের তৃতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান হলেন রমজান
পরবর্তী নিবন্ধরাণী খাল খনন -সরদার মোহাম্মদ আলী‘এর কবিতা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে