নাটোরের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “স্মাইল ফর লাইফ’’এর শীতবস্ত্র বিতরণ

0
129

নাসিম উদ্দিন নাসিম : “হারবে শীত… জিতবে মানবতা ” এই প্রতিপাদ্য সামনে রেখে, গভীর রাত বা কাক ডাকা ভোরে ঘন কুয়াশা আর কনকনে শীতের প্রকোপকে উপেক্ষা করে ছুঁটে চলা নাটোরের এ প্রান্ত থেকে অপ্রান্তে। উদ্দেশ্য দুঃস্থ-অসহায় ও দরিদ্র শীর্তাত মানুষের হাতে শীতবস্ত্র তুলে দেয়া।

সাত বছর ধরে শীতের শুরু থেকেই আমরা ভাই, ব্রাদার,বন্ধুবান্ধব মিলে সাধ্যমতো গরীব, অসহায়,ছিন্নমূল মানুষকে শীতবস্ত্র উপহার দিয়ে আসছি। নাটোরের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন স্মাইল ফর লাইফের সদস্যদের এই মহতী উদ্যোগে শুধু সচেতন মহলই অভিভুত নন, হঠাৎ-

কাকতালিয় ভাবে হাতে শীতবস্ত্র পেয়ে আনন্দে আর আবেগে আপ্লুত শীতার্ত মানুষেরাও। বেশ কয়েক বছর ধরে এ ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছি । এবারও দিয়েছি বেশকিছু শীতবস্ত্র। দুঃস্থ-অসহায় ও দরিদ্র শীর্তাতের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল, সুয়েটার, জ্যাকেট প্রদান করেছি।

“আমাদের পাশে অসংখ্য দরিদ্র মানুষ শীতে কষ্ট করে। আমাদের সকলের একটু সহযোগিতাই পারে তাদের এ কষ্ট কিছুটা লাঘব করতে”। গতানুগতিক ভাবে শুধু শহরেই দুঃস্থ-অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে নয়, প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলের অসহায়, কৃষক এবং ছিন্নমূল মানুষের হাতেও তুলে দিয়েছি।

বেশকিছু শীতবস্ত্র। প্রতিদিনই রেল ষ্টেশনে শীতার্ত দরিদ্র-দুঃস্থদের দেখলে তাদের পাশে ছুঁটে গিয়ে সাধ্যমতো সহযোগিতা করার চেষ্টা করি। শহরের বিভিন্ন বাসা থেকে অতিরিক্ত ও পুরানো ব্যবহার যোগ্য শীতবস্ত্র সংগ্রহ করে৷ তারপর

এগুলো যাছাই বাছাই, পরিস্কার এবং প্যাকেট করে বিতরন করি। বিতরনকৃত শীতবস্ত্রের সাথে মেয়েদের জামা সেট, শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্জাবিও দেয়া হয়। মানবতার দেওয়ালে শীতবস্ত্র টানিয়ে রাখার ব্যতক্রমধর্মী উদ্যোগ আমরাই নাটোরে প্রথম করি।

দেখা যায়, প্রতি বছর শীত মৌসূমে রেল ষ্টেশন, রেল কলোনীবস্তির দরিদ্র-দুঃস্থরা কেউ কেউ একাধিক বা অসংখ্য শীতবস্ত্র পেয়ে বিক্রি করে দেয়। অথচ নিম্ন মধ্যবিত্ত অসংখ্য পরিবারের সদস্যরা শীতের প্রকোপে মারা গেলেও কেউ লজ্জায় হাত পেতে পারে না শীতবস্ত্রের জন্য।

তারা না পারে চাইতে, না পারে শীতের প্রকোপ সইতে। একারণে সংগঠনটির সদস্যরা শীতবস্ত্র বিতরণে বেশির ভাগই বেছে নেয়, নিম্নবিত্ত ভাসমান ও ছিন্নমূল পরিবারকেই। তারপর শহরের চাইতে বেশী বেছে নেয়, প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলকে।

আনুষ্ঠানিক ভাবে ছাড়াও ভ্রম্যমানভাবে রাস্তা-ঘাট, হাট-বাজার, ক্ষেত-খামারে ঘুরে ঘুরে দুঃস্থ-অসহায় দরিদ্রদের পাশাপাশি মধ্যবিত্ত, অসহায় কৃষক ও নৃ-তাত্বিক জনগোষ্ঠি’র সদস্যদের হাতে তুলে দেয় শীতবস্ত্র। এ শীতবস্ত্র বিতরণে অংশ নেয়, ফেসবুকের সুশীল- সমাজের সাথে জড়িতরা।

শুধু এই শীতবস্ত্রই নয়, বছরব্যাপী মানবতার দেওয়াল পরিচালনা ,বিভিন্ন দুর্যোগ, ঈদ-পার্বণ উৎসব অনুসঙ্গ চাল, ডাল, লবন, সেমাই-চিনি, দুধ,তেলসহ শুকনো খাবারও বিতরণ করে থাকে। এছাড়াও বৃক্ষ রোপণ, বৃক্ষ চারা বিতরণ, রক্তদান কর্মসূচী,

পরিস্কার-পরিচ্ছনতা অভিযান,স্বাস্থ্য ক্যাম্প, মেধাধী-দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে খাতা ও কলম বিতরণ বিভিন্ন সামাজিক কাজ ও কর্মসূচী’র আয়োজন করে থাকি স্মাইল ফর নাটোরের এই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাক, এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধবিশ্বে ৬ষ্ঠ “যমুনা টেলিভিশন’’ সংবাদভিত্তিক ইউটিউব চ্যানেলের তালিকায়
পরবর্তী নিবন্ধনাটোরে এমপি শিমুলের নির্বাচনী ক্যাম্পে ককটেল বি.স্ফো.র.ণ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে