নাটোরে বাক প্রতিবন্ধী ধর্ষণ মামলার আসামিকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার

0
169

নাটোর কন্ঠ : নাটরের বাগাতিপাড়ায় বাক-প্রতিবন্ধী মেয়ে ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামী মোঃ মনিরুল ইসলাম ওরফে নয়ন (২৭) কে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৫। শুক্রবার রাতে ঢাকার মতিঝিলের আরামবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে বাগাতিপাড়া থানায় হস্তান্তর করা হয়। শনিবার সকালে র‌্যাব-৫, সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডারের কার্যালয় থেকে এক বিশেষ প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষটি নিশ্চিত করা হয়।

র‌্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্পের কোম্পাণী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফরহাদ হোসেন জানান, ‘বাগাতিপাড়া উপজেলার দয়রামপুর ইউনিয়নের ডুমরাই (রামপাড়া) গ্রামের মৃত তৈয়ব মোল্লার ছেলে মোঃ মনিরুল ইসলাম ওরফে নয়ন এর স্ত্রী গর্ভবতী হওয়ার পর থেকে তাদের প্রতিবেশী জনৈক কামারের বাক-প্রতিবন্ধী মেয়েকে (ভিকটিম) দিয়ে তাদের গৃহস্থলীর কাজ কর্ম করাত। সেই সুযোগে নয়ন প্রায় সময় ভিকটিমের দিকে কু নজর দিত।

এক পর্যায়ে মনিরুল ইসলাম নয়ন তার বসত বাড়িতে নিজের শয়ন কক্ষে বিছানার উপর ভিকটিমকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। ঘটনাটি নয়ন এর স্ত্রী দেখে ফেলায় স্ত্রীর সাথে তার কলহের সৃষ্টি হয়। এরই এক পর্যায়ে গত ১২ সেপ্টেম্বর বেলা অনুমান সাড়ে ১১ টার দিকে নয়নের স্ত্রী ঘটনা প্রকাশ করলে স্থনীয় লোকজনের মাধ্যমে ওই মেয়ের বাবা তা জানতে পারেন।

এই অনৈতিক ঘটনা প্রকাশ করার জন্য মনিরুল ইসলাম নয়ন তার স্ত্রীকে মারধরও করে। ভিকটিম বাক-প্রতিবন্ধী হওয়ায় ইশারা ইঙ্গিতে ধর্ষণের বিষয়টি বুঝালেও সেটা কবে কখন ধর্ষণ করেছে তা বোঝাতে পারেনা। তবে ভিকটিমের ইশারা ইঙ্গিতের মাধ্যমে ধারণা করা হয় ১ মে সকাল ৮টা হতে ১২ সেপ্টেম্বর বেলা অনুমানিক সাড়ে ১১ টার মধ্যে আসামী মনিরুল ইসলাম ওরফে নয়ন ভিকটিমকে ধর্ষণ করে।

পরবর্তীতে ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে গত ২১ সেপ্টেম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ধারা- ২০০০ সালের (সং-০৩) এর ৯(১) বাগাতিপাড়া মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। এদিকে ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর থেকেই আসামি নয়ন পলাতক থাকে।

ওই মামলার প্রেক্ষিতে বিশেষ গোয়েন্দা ও তথ্য প্রযুক্তির ভিত্তিতে র‌্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্পের সদস্যরা র‌্যাব-৩, টিকাটুলি, ঢাকা এর সহায়তায় ঢাকা মহানগরীর মতিঝিলের আরামবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে বাক-প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পলাতক আসামি মনিরুল ইসলাম ওরফে নয়নকে গ্রেপ্তার করে।’

শনিবার সকালে তাকে বাগাতিপাড়া মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয় বলে জানান র‌্যাব কর্মকর্তা। বাগাতিপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘বাগাতিপাড়া উপজেলার ডুমরাই (রামপাড়া) গ্রামের এক বাক-প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে গত ২১ সেপ্টেম্বর ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলা নং-১৫। মামলার পর থেকেই আসামি নয়নকে আটকের জোর তৎপরতা চালানো হয়। কিন্তু সে বারবার স্থান পরিবর্তন করায় তাকে আটক করা সম্ভব হচ্ছিলনা। এরই এক পর্যায়ে র‌্যাব-৫, সিপিসি-২ পলাতক আসামি মনিরুল ইসলাম নয়নকে শুক্রবার রাতে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামিকে শনিবার দুপুরে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধনাটোরে মসজিদ কমিটি দ্বন্দ্বে মারপিট : আহত ইমাম-খতিব !
পরবর্তী নিবন্ধনাটোরে গৃহবধু হত্যার অভিযোগে স্বামী ও শাশুড়ি আটক

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে