“লুট ও শ্রম” কবি রেজাউল করিম রেজা‘র কবিতা

0
758
www.natorekantho.com

“লুট ও শ্রম”

কবি রেজাউল করিম রেজা

আমি একজন অমানুষ
তোমাদের মত বিত্ত বৈভব নেই আমার
তোমরা চলো পাজেরো বা প্রাডো গাড়িতে
বাস করো আলিশান বাড়িতে।
তোমাদের রাতের ডিনার হয়
পাঁচতারা হোটেলে, সংগে থাকে সুদর্শনা রমনী।
ব্লাক মার্কেটের ব্যবসায় ফুলে উঠে তোমাদের পকেট
ব্যাংক তোমাদের ঋন দেয়, ফেরত পায়না
আমাদের পরিশ্রমের অর্জিত টাকা তোমরা লুটে নাও
ব্যবসার নামে সিন্ডিকেট করে তৈরি কর কৃত্রিম সংকট
দিন আনা মানুষদের টাকা লুটে তোমাদের চলে মহোৎসব।
তোমাদের লোভ পূরণ করতে আমাদের থাকতে হয় আধাপেটা খেয়ে
অসুখে ঔষধ পায়না,বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু হয় অনেকের
আমাদের শ্রম আমাদের টাকায় তোমাদের বিলাস
রাষ্ট্র যন্ত্রের এ এক অদ্ভুত সিস্টেম
ঋন খেলাপি বিল খেলাপিদের বিচার হয়না
হাজার হাজার কোটি টাকা লোপাটের পরেও
ঘুরে বেড়ায় সিআইপি মর্যদায়।
অথচ আমাদের চাষের ঋন দেয় না ব্যাংক
চড়া সুদে দাদন ব্যবসায়ি বা এনজিও লোন দিতে না পারায়
খুলে নিয়ে যায় হালের গরু, ঘরের টিন
তারপরেও আমরা ভাল আছি, সততার পরিশ্রমে
আমাদের অন্নে আছে ভাল লাগার স্নিগ্ধ পরশ।

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধ“প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি” -বেণুবর্ণা অধিকারী
পরবর্তী নিবন্ধ“অন্তর্ভেদ”- কবি কাজী আতীক-এর কবিতা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে