নাটোরে কান্দিভিটুয়া দুই বাড়ি লকডাউন,নতুন ৪ জনের নমুনা সংগ্রহ,আইসোলেশনে দুইজন

0
844
লকডাউন

নাটেরকন্ঠ:

নাটোর সদর হাসপাতালের সালাউদ্দিন নামে নতুন একজন সহ আইসোলেশন ইউনিটে বর্তমানে ২ জন চিকিৎসাধিন রয়েছে। তাদের মধ্যে থেকে একজন এবং শহরের কান্দিভিটা এলাকার বাড়ি থেকে একজনসহ মোট দুইজনের ও ২ জন গুরুদাসপুর উপজেলার মোট ৪ জনের করোনা ভাইরাস পরীক্ষার নমুনা রাজশাহীতে পাঠানো হয়েছে।এছড়া নাটোর শহরের কান্দিভিটুয়া এলাকায় শ্রমিক নেতা হোসেন সরদার ও তার ভাইয়ের বাড়ি লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে। বুধবার সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলম ও সদর থানা পুলিশ গিয়ে বাড়ির গেটে তালা লাগিয়ে দিয়ে লকডাউন করে দেয়।

নাটোর সদর হাসপাতালের ডাঃ মো: মনজুর রহমান জানান, শহরের কান্দিভিটা এলাকার জনৈক হোসেন সরদারের মেয়ে সুরাইয়া হোসেন ঐশির (২১) শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছে হাসপাতালের মেডিকেল টিম। সম্প্রতি ঢাকা থেকে ঐশি বাবার বাড়িতে এসে সর্দি কাশি জ্বরে আক্রান্ত হন। খবর পাওয়ার পর বাড়ির দরজায় তালা মেরে লকডাউন করে দেয় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলম। আগামীকাল নমুনার রিপোর্ট আসার পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান ইউএনও।

আরো খবর

গত তিন দিনে ২১ জনের নমুনা সংগৃহীত নাটোর প্রতিনিধি গত ২৪ ঘন্টায় নাটোর থেকে নতুন ৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২ জন গুরুদাসপুর উপজেলার এবং সদরের ২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালের ভাইরোলজি বিভাগে পাঠানো হয়েছে। এর আগে গত দুই দিনে ১৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

নাটোরের সিভিল সাজর্ন ডাঃ মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান,বুধবার নতুন করে ৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করার পর গত তিন দিনে নাটোর জেলায় ২১ জনের নমুনা সংগৃীত হয়। এসব নমুনা রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালের ভাইরোলজি বিভাগে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া জেলায় নতুন ৩ জনসহ হোমকোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১৬ জন।

 

Advertisement
পূর্ববর্তী নিবন্ধকরোনা, বিপর্যস্ত আদিবাসী জনজীবন,আদিবাসীরা কি ত্রাণ বঞ্চিত থাকবে?
পরবর্তী নিবন্ধনাটোরের বাগাতিপাড়ায় অধ্যাপক শাহ্ আলমের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে